Home / অনলাইনে আয় / টি-শার্ট ডিজাইন করে ইনকাম করুন
Online-money exchangers listing

টি-শার্ট ডিজাইন করে ইনকাম করুন

Teespring হচ্ছে একটি কাস্টম টি-শার্ট ডিজাইন প্লাটফর্ম, যেখানে আপনি টি-শার্ট ডিজাইন করে সেল করতে পারবেন। আর এই টি-শার্ট ওয়ার্ল্ড ওয়াইড সেল করা যায়, তবে ইউ এস এ এবং ইউরুপে বেশি সেল হয়। Teespring এ আপনি অনেক ধরনের ডিজাইন করতে পারবেন, যেমন – টি-শার্ট/হডি/ভি-নেক/লং-স্লিভ ইত্যাদি। প্রতি মাসে $1000 ডলার ইনকাম করা সম্ভব টি-শার্ট ডিজাইন ও বিক্রয় করে।

ধরুন, যদি টি-শার্টের দাম ২২ ডলার হয় আপনি পাবেন ৫০% কমিশন অর্থাৎ ১১ ডলার । ১ ডলার =৮০ টাকা হলে, ১১ ডলার = ৮৮০ টাকা (প্রায়)। আপনার ডিজাইনটি যতবার বিক্রয় হবে আপনি ততবার কমিশন পাবেন।

টিস্প্রিং মার্কেটপ্লেস হচ্ছে টি-শার্ট বিক্রয় করার একটি অনলাইন মার্কেটপ্লেস। এই মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে হলে আপনাকে ডিজাইন এবং মার্কেটিং জানতে হবে। এই মার্কেটপ্লেসে ফ্রীলেন্সেররা টি-শার্ট ডিজাইন করে এবং নিজেরাই ডিজাইনকৃত টিশার্ট মার্কেটিং করে বিক্রয় করে। এর মাধ্যমে ফ্রীলেন্সাররা বিক্রি করা টি-শার্টের মূল্যের উপর নির্দিষ্ট হারে কমিশন পায়। তবে আপনি যদি কোন ডিজাইনারকে নিয়োগ দিতে পারেন তাহলে ডিজাইন না জানলেও চলবে। অর্থাৎ, চাইলে দুই জনের টিমও একত্রে হয়ে কাজ করতে পারেন।

Earn from T-Shirt Design ITPagol
Teespring এই ডিজাইন নিয়ে বায়াররা কি করে ?

তারা আমাদের কে সামান্য একটা পারিশ্রমিক দিয়ে, এই ডিজাইন দিয়ে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করে, অথবা তাদের কম্পানির জন্য ব্যবহার করে। আসলে আমরা কখনো রিসার্চ করতে চাইনা, যত টুকু কাজ শিখছি তাতেই সীমাবদ্ধ থাকতে চাই, আমাদের জন্য অনেক ভালো ভালো সুযোগ রয়েছে যেটা আমরা কাজে লাগাতে পারি, যেখান থেকে আপনি ইনকাম করতে পারেন এতো টাকা যা কল্পনাও করতে পারবেন না ফ্রী/পেইড দুই ভাবেই । টিস্প্রিং আপনার বিক্রয়ক্রিত টি-শার্ট প্রিন্ট করাবে এবং নির্দিষ্ট ক্রেতার নিকট পাঠিয়ে দিবে, তাই আপনার আসল কাজ হচ্ছে ভালো ডিজাইন করা এবং তা মার্কেটিং করা ।

কিভাবে ইনকাম করবেন ?

টি-স্প্রিং একটা কাস্টম ডিজাইন টি-শার্ট প্লাটফর্ম যেখানে খুব সহজে ডিজাইন সাবমিট করে ফ্রী তে সেল পেতে পারেন, চাইলে আপনি পেইড মার্কেটিং ও করতে পারেন সেই ক্ষেত্রে আপনাকে ফেসবুক এ এড এর মাধ্যমে পেইড করতে হবে। যেহেতু আমরা ইউ এস এ এবং ইউরুপে সেল করবো, সেহেতু আমাদের ইউএস এবং ইউরুপ এর মার্কেট খেয়াল রাখতে হবে, তারা কেমন টি-শার্ট পরতে পছন্দ করে, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তারা কেমন টি-শার্ট পরে, এগুলা সম্পর্কে আইডিয়া নিতে হবে, যেমন মনে করুন আমাদের দেশ এ যখন ধর্মীও অনুস্থান হয়, তখন আমরা অনেক শপিং করি, সেরকম USA এবং EU এ হয়, অদের ধর্মীও অনুষ্ঠানে ওরা অনেক শপিং করে, আর অন্যকে গিফট দেয় বেশি, কখন কি টাইপ অনুষ্ঠান হচ্ছে সেটার দিকে খেয়াল রেখে, নিজের ডিজাইন করলেই ভালো সেল হবে।

অন্যের ডিজাইন কপি করতে পারবো ?

অন্যের ডিজাইন কপি করা যাবেনা, তবে সিমিলার ট্রাই করতে পারেন, (অন্য সাইট থেকে) তবে ১০০% ডিজাইন মিলে গেলে সুদু মাত্র সেই ডিজাইন তা ডিলেট করে দিবে টিস্প্রিং, অথবা নিজেই তৈরি করতে পারেন নিউ ডিজাইন, আমি সিমিলার ডিজাইন করেও অনেক সেল পাইছি, এখানে সব চেয়ে বেশি সেল হচ্ছে এমন সব ডিজাইন দেয়া আছে, আপনি চাইলে এখান থেকে নিজের নিস অনুযায়ী আইডিয়া নিতে পারেন এবং এর সিমিলার ডিজাইন ও করতে পারেন, তবে ১০০% ডিজাইন মিলে গেলে সুদু মাত্র সেই ডিজাইন তা ডিলেট করে দিবে টিস্প্রিং।

Teespring কিভাবে কাজ করতে হবে-

১। প্রথমে Teespring এ একাউন্ট করুন এই লিঙ্ক থেকে >> http://bit.ly/2S65VUe

(এই লিঙ্ক এ গিয়ে অ্যাকাউন্ট করুন, চাইলে ফেসবুক দিয়েও অ্যাকাউন্ট করতে পারেন, তবে আমি বলবো মেইল দিয়ে করুন এটাই ভালো হবে)

২। তারপর আপনি চাইলে টি-স্প্রিং এর ডিফল্ট এডিটর দিয়ে ডিজাইন করতে পারেন এবং চাইলে illustrator অথবা Photoshop দিয়ে ডিজাইন করে সাবমিট করতে পারেন।

৩।আপনার একটা ডিজাইন আপনি চাইলে হুডি/ফুল হাতা এবং ভি গলা তে ব্যবহার করতে পারবেন, তারপর কালার সিলেক্ট করুন মনে রাখবেন পপুলার কালার হচ্ছে ব্ল্যাক/নেভি বুলু/রয়েল বুলু/রেড ইত্যাদি।

৪। তারপর আপনাকে টাইটেল/ডিসক্রিপশন/ট্যাগ দিতে হবে, মনে রাখবেন ফ্রী তে সেল এর জন্য টাইটেল/ডিসক্রিপশন/ট্যাগ গুরুত্বপূর্ণ।

৪। তারপর ক্যাম্পেইন এর ডেট ফ্রী এর জন্য সর্ব উচ্চ ৫ দিন রাখবেন, আমার মতে এটাই বেস্ট।

৫। তারপর ক্যাম্পেইন পাবলিশ করে দিবেন, এর পর সুদু ফ্রী ইউএস মার্কেটপ্লেসে শেয়ার করবেন, যেমন- পিনটারেস্ট/টুইটার/গুগল প্লাস/ ইত্যাদি।

৬। খেয়াল রাখতে হবে যেন ডিজাইনের গঠন দেখতে সুন্দর হয়। লিখার এ্যালাইনমেন্ট, আর্টওয়ার্কের প্লেসমেন্ট, ফন্টের মধ্যে ফাকা অংশগুলো যেন সঠিক মাপে থাকে সেদিকে ভালো ভাবে খেয়াল রাখতে হবে এবং এই বিষয়গুলোতে যত্নবান হতে হবে।

৭। সঠিক কালার নির্বাচন করা: আপনার মেসেজটি/ডিজাইনটি কাদের টার্গেট করে করা হয়েছে প্রতিটি ডিজাইন আছে আলাদ আলাদা কিছু কালার কোড। এটা মেয়েদের জন্য তাহলে চেস্টা করবেন মেয়েরা পছন্দ করে এমন কালার ব্যবহার করার। যদি ছেলে হয়ে থাকে তাহলে চেষ্টা করবেন ছেলেরা যেসব কালার পছন্দ করে তেমন কালার ব্যবহার করা। যে কালারটি আপনি দিচ্ছেন সেটি আধৌ তাদের পছন্দ হয় কিনা সে বিষয়ে জানা। তাহলে ডিজাইনটি সুন্দর  হবে।

যেসব বিষয়ে আপনাকে যত্নবান হতে হবেঃ-

* ভালো প্রতিষ্ঠানে প্রশিক্ষণ নেয়া
* প্রতিষ্ঠিত ডিজাইনারের অধীনে কাজ করা
* অন্যের কাজ অনুসরণ করা
* অনলাইনে সার্চ করা
* মানসম্মত টিউটোরিয়াল দেখা
* নিজে থেকে কিছু করার চেষ্টা করা (ক্রিয়েটিভিটি)
* নিজেকে আপ-টু-ডেট রাখা
* প্রতিষ্ঠিত ডিজাইনারদের কাজ অনুসরণ করা
* কাজের স্যাম্পল/টেম্পলেট তৈরি করে রাখা
* মার্কেটিং করা

ভাবছেন সবই বুঝলাম, সবই জানি কিন্তু গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখব কিভাবে? কোর্স করার মত এত টাকাতো হাতে নেই। কোন সমস‌্যা নেই ইচ্ছে থাকলেই হবে। গ্রাফিক্সডিজাইন শেখার জন‌্য অনলাইন এ আপনি প্রচুর পরিমান টিউটরিয়াল পাবেন। আপনি গুগল কিংবা ইউটিউব এ একটা সার্চদিলেই হাজার হাজার টিউটরিয়াল এর লিংক পেয়ে যাবেন। আর সেখান থেকে আপনার কাঙ্খিত বিষয়টি নির্বাচন করে আজ থেকেই শুরু করুন অনুশীলন।

 

আপনি যখন মানসম্মত ডিজাইন করতে পারবেন তখন এ ধরনের বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস রয়েছে যেখানে আপনি বিভিন্ন ধরনের ডিজিটাল প্রডাক্ট তৈরি করে সেই মার্কেটপ্লেসগুলোতে আপলোড করে রাখতে পারেন আর সেখানথেকে যতবার সেল হবে ততবারই আপনি কমিশন পাবেন। এ ধরনের মার্কেটপ্লেস গুলোর মধ‌্যে, গ্রাফিক্স রিভার ও ক্রিয়েটিভ মার্কেট অন‌্যতম।

অনলাইনে ইনকাম এখন আর কঠিন কিছু নয়। নিয়মিত পরিশ্রম এবং নির্দিষ্ট কোন বিষয়ের উপর ভাল দক্ষতা অর্জন করলেই আপনি ঘরে বসে আয় করতে পারেন বৈদেশিক মূদ্রা। টি-স্প্রিং একটি কাস্টম টি-শার্ট প্লাটফর্ম এখানে বেসিক থেকে কাজ শুরু করতে পারবেন, এখানে কাজ করতে আপনার কোন কিছুর ধারণা না থাকলেও হবে, এই মার্কেট এ আপনি ফ্রী তে কাজ করে মাসে লাখ টাকাও ইনকাম করতে পারবেন, আর এই কোম্পানি বিশ্বস্ত কারন এতি মধ্যে অনেকে এই কোম্পানি থেকে অনেক টাকা ইনকাম করছেন এবং করছে।

লেখাটি ভাল লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন, কারন আপনার শেয়ারের কারনে আপনি অন্যদের উপকার করছেন এবং সেটি একসময় আপনার নিজের উপকারেও ফিরে আসবে। সবাইকে অনেক ধন্যবাদ। পোস্ট সম্পর্কে অবশ্যই আপনার মতামত জানাতে এবং আপনাদের কোন প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করুন।

Check Also

Fiverr Gig Tips

Fiverr টিপস | Fiverr বিক্রয় বৃদ্ধির উপায়

ফাইবার একটি সফল মার্কেট প্লেস। প্রতিদিন হাজার হাজার Buyers & Sellers এখানে বেচা কেনা করে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.