Home / অনলাইন সার্ভে / CPA মার্কেটিং শিখুন আনলিমিটেড ডলার ইনকাম করুন
Online-money exchangers listing

CPA মার্কেটিং শিখুন আনলিমিটেড ডলার ইনকাম করুন

অনলাইন জগতে রয়েছে নানামুখি উপার্জনের উপায়। সব উপায়ের মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় উপায় হল CPA মার্কেটিং । CPA মার্কেটিং প্রসেসটা এমন- কোন একটা ব্রান্ড বা কোম্পানি তাদের প্রোডাক্ট এর প্রচার করার জন্য বিভিন্ন মার্কেটিং নেটওয়ার্ক দেয়। এইসব মার্কেটিং নেটওয়ার্ক থেকে ওই প্রোডাক্ট গুলো নিয়ে আমরা বিভিন্ন জায়গায় প্রচার করে থাকি। কাজগুলো সাধারণত এমন হতে পারে- রেজিষ্টেশন, ইমেল সাবমিট, পিন সাবমিট অথবা ডাউনলোড ইত্যাদি। এজন্যই একে বলা হয়ে থাকে কস্ট পার অ্যাকশন (Cost Per Action) তার মানে যে কোন অ্যাকশন ফুলফিল হলেই আপনি কমিশন পাবেন। CPA মার্কেটিং মাধ্যমে এর গড়ে প্রতিটা লিড থেকে $1-$4 আয় হয়।

একটি অ্যাডভারটাইজিং মেথড। CPA মার্কেটিং অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামের একটি অংশ মাত্র। অনলাইনে আয়ের সহজ মাধ্যম গুলোর একটি CPA মার্কেটিং। কেননা, এখানে আপনাকে কোন প্রোডাক্ট সেল করতে হবে না। কোম্পানির জন্য লিড জেনারেট করার বিনিময়েই পাবেন কমিশন। সহজ কথায়, আমার কোম্পানির প্রোডাক্ট বিক্রির জন্য আপনি কাস্টমার নিয়ে আসবেন। আপনার মাধ্যমে যতজন কাস্টমার আমি পাবো তার বিনিময়ে আপনাকে কমিশন দেওয়া হবে। সে কাস্টমার প্রোডাক্ট না কিনলেও আপনাকে কমিশন দেওয়া হবে।

সিপিএ মার্কেটিং করুন, বেকারত্ব দূর করুন, আয় করুন অনলাইনে

কোন ধরনের ব্যক্তি CPA মার্কেটিং শিখতে পারবেন? 

1. ইন্টারনেট সম্পর্কে যার নুন্যতম জ্ঞান রয়েছে।
2. যিনি অনলাইন থেকে আয় করতে ইচ্ছুক।
3. যিনি কম্পিউটারে ৩ থেকে ৪ ঘন্টা সময় দিতে পারবেন।
4. আর ধর্যের কোন বিকল্প নেই।

CPA মার্কেটিং কিভাবে কাজ করে?

CPA মার্কেটিং এর জন্য আপনাকে কোন বিনিয়োগ করতে হবে না। শুধুমাত্র কোম্পানির মার্কেটিং করে লিড তৈরি করার জন্য আপনাকে কমিশন দেওয়া হবে। যেমনঃ আপনার মাধ্যমে কেউ ফর্ম পূরণ করলে, ফর্ম পূরণের জন্য আপনাকে নির্দিষ্ট পরিমাণ কমিশন দেওয়া হবে। অথবা আপনার মাধ্যমে কেউ আমার কোম্পানির গেইম ডাউনলোড করলে কিংবা গেইম খেলার জন্য অ্যাকাউন্ট তৈরি করলে আপনি কমিশন পাবেন। আর এ কারণেই CPA মার্কেটিং অধিক জনপ্রিয় ও আয়ের সহজ মাধ্যম।
ধরুন, কোন গেমিং সাইট যদি অফার দেয় যে, “আমাদের গেমিং সাইটটিতে কেউ(গেমার) সাইন আপ করে, তাহলে যার মাধ্যমে(আপনি) আসবে তাকে আমরা 10 ডলার কমিশন দিব”। অতএব, আপনার লিঙ্কের (Offer Link) মাধ্যমে যদি কোন ব্যক্তি অনলাইনে গেমিং সাইটটিতে সাইন আপ সম্পন্ন করে, তাহলে প্রতি সাইন আপ 10 ডলার আপনার অ্যাকাউন্টে জমা হবে।

তবে যদি বলা হয়, যে গেমার সাইন আপ সম্পন্ন করবে তাকে অব্যশই USA থেকে সাইন আপ করতে হবে, তাহলেই আপনি $10 ডলার কমিশন পাবেন, অন্যথায় কোন কমিশন পাবেন না। মানে আপনার লিঙ্কের (Offer Link) মাধ্যমে যদি 100 জন সাইন আপ সম্পন্ন করে, এর মধ্যে যদি 5 জন USA থেকে গেমিং সাইটটিতে সাইন আপ সম্পন্ন করে তাহলে আপনি শুধুমাত্র ঐ 5 জনের সাইন আপ সম্পন্ন বাবদ (5 X $10)= $50 ডলার কমিশন পাবেন। অর্থাৎ বাংলাদেশী টাকায় প্রায় (৫০*৮৫)=৪,২৫০/= টাকা। বাকি 95 জনের জন্য কোন কমিশন পাবেন না, কারন তারা এর USA ভিজিটর না।

বর্তমানে সেরা সিপিএ নেটওয়ার্ক গুলোর মধ্যে 4 টি নিচে উল্লেখ করা হলঃ –

১. Adworkmedia

Adworkmedia Banner

২. CPALead

CPALead Banner

৩. CPAGrip

CPAGrip

৪. CPABuild

CPA Build Banner

সিপিএ নেটওয়ার্ক এ রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতিঃ-

প্রায় সব সিপিএ নেটওয়ার্ক সাইটে সাইনআপের সময় আপনার প্রোমশন মেথড অথবা প্ল্যান সম্পর্কে জানতে চায়। সেক্ষেত্রে নিচের এই লেখাটুকু কপি-পেস্ট করে দিন।

I am planning to advertise my links and earning money by creating websites, youtube videos and also advertising with ppc and ppv(bing ads, facebook ads and google ads). I plan on making a website for each niche I have and also plan on doing some SEO to get it high on Googles ranking system. I have been motivated by various people to start earning money on the web and I will dedicate a few hours of my day to achieve this. I hope to be earning with your website soon.

যদি বলে- Incentive Traffic: Yes/No. আপনি No দিবেন। ইনসেনটিভ ট্রাফিক মানে আপনি ঘুষ দিয়ে ট্রাফিক আনবেন কি না সেটা। Website URLs: youtube.com/ facebook.com/ google.com/ bing.com বা আপনার যদি ভাল ভিজিটর সহ কোনও সাইট থাকে।

যেভাবে আপনি অফার গুলো প্রোমট করবেনঃ-

আপনি যখন কোন সিপিএ নেটওয়ার্ক সাইটে এপ্রোভাল পাবেন তখন সেই সাইটে লগিন করলে আপনার ড্যাশবোর্ড পাবেন। ড্যাশবোর্ডে গিয়ে আপনার পছন্দমত অফার বাছাই করবেন। সেই অফারে আপনার লিংকটি পাবেন। সেই লিংকটিই আপনি প্রোমট করবেন। ধরুন, আপনার পছন্দ গেম নিয়ে কাজ করা। তাহলে আপনি গেমিং অফার বাছাই করবেন। এরপর গেম রিলেটেড জায়গায় আপনার লিংকটি প্রোমট করবেন।

আপনিও শুরু করতে পারেন ফ্রি ট্রাফিক দিয়ে এবং নতুনদের জন্য ফ্রি ট্রাফিকই রিকমেন্ড করা হয়। ফ্রি ট্রাফিক সোর্সের মধ্যে রয়েছে- ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং, ব্লগ টিউমেন্টটিং, ফোরাম টিউনিং, আর্টিকেল মার্কেটিং এবং সোস্যাল মিডিয়া মার্কেটিং যেমন- ফেসবুক, টুইটার পিন্টারেস্ট ইত্যাদি। তবে অবশ্যই স্প্যাম করে নয়। দীর্ঘ মেয়াদি পরিকল্পনা করে অগ্রসর হতে হবে। তবে বর্তমান সময়ে ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং খুবই জনপ্রিয়। সংক্ষেপে ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং- আপনার অফার রিলেটেড ভিডিও বানান, ইউটিউবে চ্যানেল তৈরি করুন, সেখানে ভিডিওটি আপলোড করুন, ভালো একটি টা্ইটেল দিন, ডিস্ক্রিপশন লিখুন এবং সেখানে আপনার অফারের লিংক দিন। এরপর আপনার ভিডিওটি বিভিন্ন জায়গায় শেয়ার করুন। তবে ইউটিউব এর ডিফল্ট শেয়ার গুলোই যথেষ্ট বলে আমি মনে করি। ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং এ আরেকটা বোনাস হলো গুগল এডসেন্স থেকে আয়। সুতরাং একসঙ্গে আপনি দুইটা উপার্জন করতে পারছেন। ইউটিউব এবং অন্যান্য ফ্রি ট্রাফিক নিয়ে একটু পড়াশোনা করুন অবশ্যই সফল হবেন বলে আসা করা যায়।

ফ্রিল্যান্সিং এবং সিপিএ মার্কেটিং এর মধ্যে পার্থক্য কি?

ফ্রিল্যান্সিং বিড করে কাজ করতে হয় এবং বায়ার থেকে কাজ নিয়ে কাজ করতে হয় আর সিপিএ (CPA) মার্কেটে আপনাকে বিড করতে হবেনা, নিজের একাউন্টে নিজেই কাজ করতে পারবেন। যেকোন সময় কাজ করতে পারবেন। এবং আপনি নিজের বিজনেস নিজেই করবেন, চাইলে আপনি টাকা খরচ করে কাজ করতে পারেন অথবা ফ্রি মার্কেটিং ম্যাথডে কাজ করতে পারেন। একবার CPA – সিপিএ মার্কেটিং করার চেস্টা করে দেখুন না। যদি ভাল লেগে যায় তাহলে এটাই হতে পারে আপনার ভবিষ্যৎ ক্যারিয়ার।

Check Also

apnarkaj.com

ApnarKaj.com | বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সারদের নতুন ঠিকানা

ইংরেজী ভাষা বুঝতে না পারার কারণে ফ্রিল্যান্সিং পেশা থেকে সরে যাচ্ছে প্রতি বছর হাজার হাজার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.